• Usulud Deen Cover 2

মহা বিশ্বের পরতে পরতে রয়েছে মহান আল্লাহ্‌র পরিচিতি ও নিদর্শন

মহাবিশ্বের পরতে পরতে রয়েছে মহান আল্লাহ্‌র পরিচিতি ও নিদর্শন । ক্বোরআনে কারীমে আল্লাহ سبحانه وتعالى ইরশাদ করেছেন:-

أَفِي اللَّهِ شَكٌّ فَاطِرِ السَّمَاوَاتِ وَالْأَرْضِ. (سورة إبراهيم- ٠١)

অর্থাৎ- সমগ্র আছমান ও যমীনের সৃষ্টিকর্তা আল্লাহ্‌র ব্যাপারে কি কোন সন্দেহ আছে? (ছূরা ইবরাহীম- ১০)

তাওহীদুর রুবূবিয়্যাহ বলতে কি বুঝায়?

তাওহীদুর রুবূবিয়্যাহ হলো- ”আল্লাহ سبحانه وتعالى তাঁর সকল কর্মে একক, অদ্বিতীয় ও সম্পূর্ণরূপে অংশীদারহীন”, একথা নিজের ‘আক্বীদাহ-বিশ্বাস, কথা ও কাজের দ্বারা প্রতিয়মান করা। আল্লাহ جل وعلا তাঁর সকল কাজে, যেমন- সৃষ্টি করা, হুক্‌ম প্রদান, রিয্‌ক্ব দান, জীবন ও মৃত্যুদান, সমগ্র জগতের রাজত্ব ও পরিচালনা ইত্যাদিতে একক, অদ্বিতীয় ও সম্পূর্ণরূপে

“আল্লাহ্‌র প্রতি বিশ্বাস” বলতে কি বুঝায় ?

আল্লাহ্‌র প্রতি এই বিশ্বাস পোষণ করা যে, যেহেতু একমাত্র আল্লাহ سبحانه وتعالى মানবজাতিকে এবং জগতের সকল কিছুকে সৃষ্টি করেছেন। তিনিই সমগ্র জগতের একক সৃষ্টিকর্তা, নির্দেশ প্রদানকারী, জীবন ও মৃত্যু দানকারী, একক পালনকর্তা, জীবিকা প্রদানকারী এবং সমগ্র জগতের একক মালিক, পরিচালক ও ব্যবস্থাপক। তিনি (আল্লাহ عز وجل) তাঁর অনুগত

ইছলামী ‘আক্বীদাহ সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করতে হবে কেন?

ইছলামী ‘আক্বীদাহ্‌র অর্থ বুঝার জন্য, এই ‘আক্বীদাহ কিসের উপর নির্ভরশীল, এর রুকন সমূহ কি কি, এর বিপরীত বিষয়াদী কি, এবং ইছলামী আক্বীদাহ-বিশ্বাস তথা তাওহীদী ‘আক্বীদাহ্‌কে বাতিল ও বিনষ্টকারী; শিরকে আকবার ও শিরকে আসগার কি, এসব বিষয় জানার জন্য ইছলামী ‘আক্বীদাহর জ্ঞান অর্জন করা প্রত্যেক মুছলমানের উপর ওয়াজিব।

তাওহীদুল উলূহিয়্যাহ বা তাওহীদুল ‘ইবাদাহ বলতে কি বুঝায়? 

তাওহীদুল উলূহিয়্যাহ বা তাওহীদুল ‘ইবাদাহ হলো:- আল্লাহ سبحانه وتعالى মানব জাতিকে যে কাজের জন্য; যে উদ্দেশ্যে সৃষ্টি করেছেন, সেই কাজে তথা ‘ইবাদাতে আল্লাহ্‌র এককত্ব অক্ষুন্ন রাখা এবং ‘ইবাদাতে আল্লাহ্‌কে একক ও অদ্বিতীয় প্রমাণিত করা। মোটকথা, সকল প্রকার ‘ইবাদাত এক আল্লাহ্‌র জন্য নিবেদিত করা। তিনি ব্যতীত তাঁর সৃষ্টি; আর কাউকে আহবান না

“তাওহীদুল আছমা ওয়াস্ সিফাত” বলতে কি বুঝায়?

তাওহীদুল আছমা ওয়াস্ সিফাত হলো:- আল্লাহ্‌র নাম ও গুণাবলী সমূহ যা ক্বোরআন ও ছুন্নাহতে বর্ণিত রয়েছে, সেগুলোর কোনরূপ পরির্বতন, পরিবর্ধন, সংযোজন, বিয়োজন, ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণ এবং সৃষ্ট কোন বস্তর সাথে সেগুলোর কোন প্রকার তুলনা, উপমা, সদৃশ কিংবা আকার-আকৃতি, উৎপ্রেক্ষা নির্ধারণ না করে ক্বোরআন ও ছুন্নাহ্‌তে যেভাবে বর্ণিত হয়েছে, বাহ্যিক অর্থসহ হুবহু সেগুলোর প্রতি দৃঢ়ভাবে ঈমান পোষণ করা।

“শেষ দিনের প্রতি বিশ্বাস” বলতে কি বুঝায়?

শেষ দিনের প্রতি বিশ্বাস হলো:- ইয়াওমুল ক্বিয়ামাহ বা ক্বিয়ামাত দিবস এবং পরকাল সম্পর্কে আল্লাহ سبحانه وتعالى ও তাঁর রাছূল صلى الله عليه وسلم প্রদত্ত যাবতীয় সংবাদের প্রতি ঈমান পোষণ করা। পুনরুজ্জীবন ও পুনরুত্থানে বিশ্বাস করা, তথা দৃঢ়ভাবে এই বিশ্বাস পোষণ করা যে, আল্লাহ عز وجل যিনি সমস্ত সৃষ্টিকে অনস্তিত্ব থেকে অস্তিত্ব দান করেছেন, তিনিই সমস্ত কিছু ধ্বংস

Subscribe to our mailing list

* indicates required
Close