• Usulud Deen Cover 2

আল ইমাম মুহাম্মাদ ইবনু সালিহ্‌ আল ‘উছাইমীন কর্তৃক ব্যাখ্যাকৃত আল ইমাম ইবনু ক্বোদামাহ আল মাক্বদিছী রচিত -‘আক্বীদাহ সংকলন- গ্রন্থ (৫১তম পর্ব)

এই অডিওটি আশ্‌শাইখ মুহাম্মাদ ইবনু সালিহ্ আল ‘উছাইমীন رحمه الله কর্তৃক ব্যাখ্যাকৃত ইমাম ইবনু ক্বোদামাহ আল মাক্বদিছী رحمه الله এর সুপ্রসিদ্ধ গ্রন্থ “লুম‘আতুল ই‘তিক্বাদ”এর ধারাবাহিক অডিও ভাষান্তর। বাংলা ভাষায় অডিওরূপে এটি ভাষান্তর করেছেন উছ্‌তায আবূ ছা‘আদা হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله। এতে ছালাফে সালিহীনের (رضي الله عنهم) আক্বীদাহ-বিশ্বাসের বিবরণ তুলে ধরা হয়েছে। আহলুছ্ ছুন্নাহ ওয়াল জামা‘আতের ‘উলামায়ে কিরামের চিরাচরিত স্বভাব–বৈশিষ্ট্যও হলো যে, তারা তাদের লিখনীর মাধ্যমে সর্বাগ্রে বিশুদ্ধ ইছলামী ‘আক্বীদাহ সংরক্ষণ এবং তা প্রচার ও প্রসার করে থাকেন। বক্তব্যের এ পর্বেও উছতায হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله “হিছাব”সম্পর্কে আলোচনা করেছেন। আলোচনার সারসংক্ষেপ নিম্নরূপঃ
১) ক্বিয়ামাতের দিন আল্লাহ سبحانه وتعالى স্বীয় বান্দাহদের থেকে তাদের প্রত্যেকটি কৃতকর্মের হিসাব নিবেন। একজন মূমিন-মুছলিমের আপন জীবনকে সঠিক পথে পরিচালিত করার জন্য এই “হিছাবের” উপরে বিশ্বাস থাকাটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। পরকালের হিসাবের বিষয়কে অস্বীকার করলে ব্যক্তি মূমীন বলে গণ্য হবে না। যেমন, ক্বোরআনে কারীমে আল্লাহ سبحانه وتعالى ইরশাদ করেছেন- اِنَّ اِلَیۡنَاۤ اِیَابَہُمۡ ثُمَّ اِنَّ عَلَیۡنَا حِسَابَہُمۡ
অর্থাৎ- তাদের প্রত্যাবর্তন আমারই দিকে। অতঃপর তাদের হিসাব নেয়া তো আমারই কাজ। (ছূরা আল গা-শিয়াহ- ২৫-২৬)

আল ইমাম মুহাম্মাদ ইবনু সালিহ্‌ আল ‘উছাইমীন কর্তৃক ব্যাখ্যাকৃত আল ইমাম ইবনু ক্বোদামাহ আল মাক্বদিছী রচিত -‘আক্বীদাহ সংকলন- গ্রন্থ (৫০তম পর্ব)

এই অডিওটি আশ্‌শাইখ মুহাম্মাদ ইবনু সালিহ্ আল ‘উছাইমীন رحمه الله কর্তৃক ব্যাখ্যাকৃত ইমাম ইবনু ক্বোদামাহ আল মাক্বদিছী رحمه الله এর সুপ্রসিদ্ধ গ্রন্থ “লুম‘আতুল ই‘তিক্বাদ”এর ধারাবাহিক অডিও ভাষান্তর। বাংলা ভাষায় অডিওরূপে এটি ভাষান্তর করেছেন উছ্‌তায আবূ ছা‘আদা হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله। এতে ছালাফে সালিহীনের (رضي الله عنهم) আক্বীদাহ-বিশ্বাসের বিবরণ তুলে ধরা হয়েছে। আহলুছ্ ছুন্নাহ ওয়াল জামা‘আতের ‘উলামায়ে কিরামের চিরাচরিত স্বভাব–বৈশিষ্ট্যও হলো যে, তারা তাদের লিখনীর মাধ্যমে সর্বাগ্রে বিশুদ্ধ ইছলামী ‘আক্বীদাহ সংরক্ষণ এবং তা প্রচার ও প্রসার করে থাকেন। বক্তব্যের এ পর্বে উছতায হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله “হিছাব” সম্পর্কে আলোচনা করেছেন। আলোচনার সারসংক্ষেপ নিম্নরূপঃ
১) “হিছাব” বিষয়ে ইমাম ইবনু ক্বোদামাহ رحمه الله বলেছেন- আল্লাহ سبحانه وتعالى মানুষের হিসাব নিবেন, মীযান ক্বায়িম করা হবে, মানুষের নামায়ে ‘আমালগুলো খুলে দেওয়া হবে। যেমন- ক্বোরআনে কারীমে আল্লাহ سبحانه وتعالى ইরশাদ করেছেন-

فَاَمَّا مَنۡ اُوۡتِیَ کِتٰبَہٗ بِیَمِیۡنِہٖ فَسَوۡفَ یُحَاسَبُ حِسَابًا یَّسِیۡرًا وَّ یَنۡقَلِبُ اِلٰۤی اَہۡلِہٖ مَسۡرُوۡرًا وَ اَمَّا مَنۡ اُوۡتِیَ کِتٰبَہٗ وَرَآءَ ظَہۡرِہٖ فَسَوۡفَ یَدۡعُوۡا ثُبُوۡرًا وَّ یَصۡلٰی سَعِیۡرًا

অর্থাৎ- অতঃপর যার ‘আমালনামা তার ডান হাতে দেয়া হবে, অচিরেই তার হিসাব সহজভাবে নেয়া হবে। আর সে তার স্বজনদের কাছে সানন্দে ফিরে যাবে। আর যাকে তার আমালনামা তার পিঠের পিছন দিক থেকে দেয়া হবে

করোনাভাইরাস সম্পর্কিত ইছলামিক দৃষ্টিভঙ্গি

ধারাবাহিক এই অডিও বক্তব্যগুলো উছতায হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله একটি ধারাবাহিক অডিও বক্তব্য। ‘আরবীতে দু’টি বিষয় আছে- একটি হচ্ছে আল-ওয়াবা, আরেকটি হচ্ছে আত্ব-ত্বা’ঊন। ওয়াবা থেকে ত্বা’ঊন আরো মারাত্মক ও বিপর্যয় সৃষ্টিকারী।

ক্বোরআনের তাফছীর (৯ম পর্ব)

এটি উছতায আবূ ছা‘আদা হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله প্রদত্ত একটি ধারাবাহিক অডিও বক্তব্য। উক্ত ধারাবাহিক বক্তব্যে উছতায পবিত্র ক্বোরআনের ছূরা সমূহের তাফছীর প্রদান করবেন, ইন-শা-আল্লাহ, إن شاء الله।
ধারাবাহিক বক্তব্যে নিম্নোক্ত বইসমূহ উৎস হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছে-

ক) আল ‘আল্লামা ‘আব্দুল্লাহ আছ্‌ ছা‘দী رحمه الله রচিত এবং শাইখ সালিহ্‌ আল ‘উছাইমীন رحمه الله কর্তৃক ব্যাখ্যাকৃত আত-তা‘লীক্ব ‘আলাল ক্বাওা‘য়ীদ আল-হিছান।
খ) আল ‘আল্লামা মুহাম্মাদ ‘আলী আস্‌ সাবূনী رحمه الله রচিত আত্‌ তিবয়ান ফী ‘উলূমিল ক্বোরআন।
গ) আল-‘আল্লামা ছুয়ূতী رحمه الله রচিত আল-ইতক্বান।
এছাড়াও ছালাফদের রচিত আরো কিছু কিতাব থেকে সারাংশ উপস্থাপন করা হবে, إن شاء الله।।
বক্তব্যের এ পর্বে উছতায নিম্নোক্ত বিষয়গুলো আলোচনা করেছেন-

১) بِسۡمِ اللہِ বা তাছমিয়াহ সম্পর্কে রাছূলুল্লাহ صلى الله عليه وسلم বলেছেন- কোনো গুরুত্বপূর্ণ কাজ যদি তাছমিয়াহ তথা বিছমিল্লাহ দ্বারা শুরু করা না হয়, তবে সেই কাজ হবে লেজকাটা ও বারাকাতহীন।
তাছমিয়ার গুরুত্ব বুঝার জন্য রাছূলুল্লাহ্র (صلى الله عليه وسلم) এই হাদীছটিই যথেষ্ট। কিছু কিছু কাজ রয়েছে, যেগুলোর শুরুতে তাছমিয়াহ পাঠ করা

ক্বোরআনের তাফছীর (৮ম পর্ব)

এটি উছতায আবূ ছা‘আদা হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله প্রদত্ত একটি ধারাবাহিক অডিও বক্তব্য। উক্ত ধারাবাহিক বক্তব্যে উছতায ক্বোরআনে কারীমের ছূরা সমূহের তাফছীর প্রদান করবেন, إن شاء الله।
ধারাবাহিক বক্তব্যে নিম্নোক্ত বইসমূহ উৎস হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছে-

ক) আল ‘আল্লামা ‘আব্দুল্লাহ আছ্‌ ছা‘দী رحمه الله রচিত এবং শাইখ সালিহ্‌ আল ‘উছাইমীন رحمه الله কর্তৃক ব্যাখ্যাকৃত আত-তা‘লীক্ব ‘আলাল ক্বাওা‘য়ীদ আল-হিছান।
খ) আল ‘আল্লামা মুহাম্মাদ ‘আলী আস্‌ সাবূনী رحمه الله রচিত আত্‌ তিবয়ান ফী ‘উলূমিল ক্বোরআন।
গ) আল-‘আল্লামা ছুয়ূতী رحمه الله রচিত আল-ইতক্বান।
এছাড়াও ছালাফদের রচিত আরো কিছু কিতাব থেকে সারাংশ উপস্থাপন করা হবে, إن شاء الله।

বক্তব্যের এই পর্বে উছতায নিম্নোক্ত বিষয়গুলো আলোচনা করেছেন-
১) মুসহাফের প্রথম ছূরা হচ্ছে আল-ফাতিহাহ। এটি মাক্কী ছূরা। এতে মোট সাতটি আয়াত রয়েছে। এই ছূরার অনেকগুলো নাম বিশুদ্ধ ছুন্নাহ দ্বারা প্রমাণিত। যেমন-

ক) আল-ফাতিহাহ 

ক্বোরআনের তাফছীর (৭ম পর্ব)

এটি উছতায আবূ ছা‘আদা হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله প্রদত্ত একটি ধারাবাহিক অডিও বক্তব্য। উক্ত ধারাবাহিক বক্তব্যে উছতায ক্বোরআনে কারীমের ছূরা সমূহের তাফছীর প্রদান করবেন, إن شاء الله। বক্তব্যের এই পর্বে উছতায তাফছীরের নিয়ম-নীতি ও ‘উলূমুল ক্বোরআন সম্পর্কে আলোচনা করেছেন।
নিম্নোক্ত কিতাবসমূহ উৎস হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছে-

ক) আল ‘আল্লামা ‘আব্দুল্লাহ আছ্‌ ছা‘দী رحمه الله রচিত এবং শাইখ সালিহ্‌ আল ‘উছাইমীন رحمه الله কর্তৃক ব্যাখ্যাকৃত আত-তা‘লীক্ব ‘আলাল ক্বাওা‘য়ীদ আল-হিছান।
খ) আল ‘আল্লামা মুহাম্মাদ ‘আলী আস্‌ সাবূনী رحمه الله রচিত আত্‌ তিবয়ান ফী ‘ঊলূমিল ক্বোরআন।
গ) আল-‘আল্লামা ছুয়ূতী رحمه الله রচিত আল-ইতক্বান।
এছাড়াও ছালাফদের রচিত আরো কিছু কিতাব থেকে সারাংশ উপস্থাপন করা হবে, إن شاء الله।

১) ক্বোরআনে কারীমের সর্বপ্রথম নাযিল হওয়া আয়াত কোনটি?
ছূরা ‘আলাক্বের প্রথম তিনটি আয়াতই হচ্ছে ক্বোরআনে কারীমের নাযিল হওয়া সর্বপ্রথম আয়াত। এ তিনটি আয়াত হলো-

اِقۡرَاۡ بِاسۡمِ رَبِّکَ الَّذِیۡ خَلَقَ خَلَقَ الۡاِنۡسَانَ مِنۡ عَلَقٍ اِقۡرَاۡ وَ رَبُّکَ الۡاَکۡرَمُ

আল ইমাম মুহাম্মাদ ইবনু সালিহ্‌ আল ‘উছাইমীন কর্তৃক ব্যাখ্যাকৃত আল ইমাম ইবনু ক্বোদামাহ আল মাক্বদিছী রচিত -‘আক্বীদাহ সংকলন- গ্রন্থ (৪৯নং পর্ব)

এই অডিওটি আশ্‌শাইখ মুহাম্মাদ ইবনু সালিহ্ আল ‘উছাইমীন رحمه الله কর্তৃক ব্যাখ্যাকৃত ইমাম ইবনু ক্বোদামাহ আল মাক্বদিছী رحمه الله এর সুপ্রসিদ্ধ গ্রন্থ “লুম‘আতুল ই‘তিক্বাদ”এর ধারাবাহিক অডিও ভাষান্তর। বাংলা ভাষায় অডিওরূপে এটি ভাষান্তর করেছেন উছ্‌তায আবূ ছা‘আদা হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله। এতে ছালাফে সালিহীনের (رضي الله عنهم) আক্বীদাহ-বিশ্বাসের বিবরণ তুলে ধরা হয়েছে। আহলুছ্ ছুন্নাহ ওয়াল জামা‘আতের ‘উলামায়ে কিরামের চিরাচরিত স্বভাব–বৈশিষ্ট্যও হলো যে, তারা তাদের লিখনীর মাধ্যমে সর্বাগ্রে বিশুদ্ধ ইছলামী ‘আক্বীদাহ সংরক্ষণ এবং তা প্রচার ও প্রসার করে থাকেন। বক্তব্যের এ পর্বে উছতায হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله ‘হিছাব’ সম্পর্কে আলোচনা করেছেন। আলোচনার সারসংক্ষেপ নিম্নরূপঃ
১) ইবনু ক্বোদামাহ رحمه الله বলেন, শাফা′য়াতের পর্ব শেষ হওয়ার পরেই আল্লাহ سبحانه وتعالى তার বান্দাহদের হিসাব গ্রহণ করবেন এবং দাঁড়িপাল্লা প্রতিষ্ঠা করা হবে। অতঃপর প্রত্যেকের ′আমালনামাগুলো খুলে দেওয়া হবে। এই ′আমালনামাগুলো প্রত্যেকের ডানে-বামে উড়তে থাকবে। এই প্রসঙ্গে তিনি ক্বোরআনে কারীমের এই আয়াতগুলো উল্লেখ করেন-

فَأَمَّا مَنْ أُوتِيَ كِتَابَهُ بِيَمِينِهِ فَسَوْفَ يُحَاسَبُ حِسَابًا يَسِيرًا وَيَنْقَلِبُ إِلَى أَهْلِهِ مَسْرُورًا وَأَمَّا مَنْ أُوتِيَ كِتَابَهُ وَرَاءَ ظَهْرِهِ فَسَوْفَ يَدْعُو ثُبُورًا وَيَصْلَى سَعِيرًا

Subscribe to our mailing list

* indicates required
Close