নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং তা থেকে উত্তোরণের ক্বোরআন-ছুন্নাহ ভিত্তিক পথ ও পদ্ধতি (২২নং পর্ব)

উছতায আবূ ছা‘আদাহ হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله এই অডিও বক্তব্যে নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং এসকল সমস্যা থেকে উত্তোরণের পথ ও পদ্ধতি বিষয়ে ক্বোরআন-ছুন্নাহ্র আলোকে অত্যন্ত মূল্যবান আলোচনা পেশ করেছেন। পারিবারিক এবং বৈবাহিক জীবনে নারীরা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হওয়া, সন্তানদের লালন-পালন করা, সুখী ও সমৃদ্ধ পরিবার গড়ে তোলা, ঘরের বাইরে কাজ-কর্ম করা ইত্যাদি অনেকগুলো বিষয় সম্পর্কে এখানে আলোচনা করা হয়েছে।
এই পর্বে উছতায “আল-হায়া” বিষয়ে আলোচনা করেছেন। উক্ত বক্তব্য থেকে অতি গুরুত্বপূর্ণ বিশেষ ক’টি বিষয় নিম্নে উল্লেখ করা হলো:-

১) হায়া বা লজ্জাশীলতা দুই প্রকার-

(ক) আল্লাহ্‌র (سبحانه وتعالى) প্রতি মানুষের লজ্জাশীলতা।
(খ) মানুষের প্রতি বা সৃষ্টির প্রতি মানুষের লজ্জাশীলতা।

২) আল্লাহ্‌র (سبحانه وتعالى) প্রতি মানুষের লজ্জাশীলতা পোষণের অর্থ কি এবং তা কিভাবে অর্জন করা যায়?

নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং তা থেকে উত্তোরণের ক্বোরআন-ছুন্নাহ ভিত্তিক পথ ও পদ্ধতি (২১তম পর্ব)

উছতায আবূ ছা‘আদাহ হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله এই অডিও বক্তব্যে নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং এসকল সমস্যা থেকে উত্তোরণের পথ ও পদ্ধতি বিষয়ে ক্বোরআন-ছুন্নাহ্র আলোকে অত্যন্ত মূল্যবান আলোচনা পেশ করেছেন। পারিবারিক এবং বৈবাহিক জীবনে নারীরা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হওয়া, সন্তানদের লালন-পালন করা, সুখী ও সমৃদ্ধ পরিবার গড়ে তোলা, ঘরের বাইরে কাজ-কর্ম করা ইত্যাদি অনেকগুলো বিষয় সম্পর্কে এখানে আলোচনা করা হয়েছে।
এই পর্বে উছতায “আল-হায়া” বিষয়ে আলোচনা করেছেন। উক্ত বক্তব্য থেকে অতি গুরুত্বপূর্ণ বিশেষ ক’টি বিষয় নিম্নে উল্লেখ করা হলো:-
১) লজ্জাশীলতা ও তার গুরুত্ব সম্পর্কে ধারাবাহিক আলোচনা।
২) ঈমানদারের অন্যতম গুণ বা বৈশিষ্ট্য হলো হায়া।
৩) ছা‘আদ ইবনু ‘উবাদাহ رضي الله عنه এর হায়া সম্পর্কিত একটি কথা এবং এর উপর রাছূলুল্লাহ صلى الله عليه وسلم এর অভিমত।
৪) হায়া বা লজ্জাশীলতা দুই প্রকার-

নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং তা থেকে উত্তোরণের ক্বোরআন-ছুন্নাহ ভিত্তিক পথ ও পদ্ধতি (২০তম পর্ব)

উছতায আবূ ছা‘আদাহ হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله এই অডিও বক্তব্যে নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং এসকল সমস্যা থেকে উত্তোরণের পথ ও পদ্ধতি বিষয়ে ক্বোরআন-ছুন্নাহ্র আলোকে অত্যন্ত মূল্যবান আলোচনা পেশ করেছেন। পারিবারিক এবং বৈবাহিক জীবনে নারীরা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হওয়া, সন্তানদের লালন-পালন করা, সুখী ও সমৃদ্ধ পরিবার গড়ে তোলা, ঘরের বাইরে কাজ-কর্ম করা ইত্যাদি অনেকগুলো বিষয় সম্পর্কে এখানে আলোচনা করা হয়েছে।
এই পর্বে উছতায “আল-হায়া” বিষয়ে আলোচনা করেছেন। উক্ত বক্তব্য থেকে অতি গুরুত্বপূর্ণ বিশেষ ক’টি বিষয় নিম্নে উল্লেখ করা হলো:-
১) লজ্জাশীলতা ঈমানের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ।
২) লজ্জাশীলতার অভাবে আমাদের সমাজে সৃষ্ট বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে উছতায আলোচনা করেছেন।
৩) ইমাম ইবনুল ক্বায়্যিম رحمه الله লজ্জাশীল হওয়ার বা লজ্জাশীলতার গুণ অর্জনের যেসব উপায় বর্ণনা করেছেন, উছতায নিম্নে সেগুলো তুলে ধরেছেন।

(ক) এই জ্ঞান অর্জন করা যে, আল্লাহ سبحانه وتعالى তাকে (প্রতিটি মানুষকে) প্রতিটি মূহুর্তে নজরদারি করছেন।

নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং তা থেকে উত্তোরণের ক্বোরআন-ছুন্নাহ ভিত্তিক পথ ও পদ্ধতি (১৯তম পর্ব)

উছতায আবূ ছা‘আদাহ হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله এই অডিও বক্তব্যে নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং এসকল সমস্যা থেকে উত্তোরণের পথ ও পদ্ধতি বিষয়ে ক্বোরআন-ছুন্নাহ্র আলোকে অত্যন্ত মূল্যবান আলোচনা পেশ করেছেন। পারিবারিক এবং বৈবাহিক জীবনে নারীরা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হওয়া, সন্তানদের লালন-পালন করা, সুখী ও সমৃদ্ধ পরিবার গড়ে তোলা, ঘরের বাইরে কাজ-কর্ম করা ইত্যাদি অনেকগুলো বিষয় সম্পর্কে এখানে আলোচনা করা হয়েছে।
এই পর্বে উছতায  “আল-হায়া” বিষয়ে আলোচনা করেছেন। উক্ত বক্তব্য থেকে অতি গুরুত্বপূর্ণ বিশেষ ক’টি বিষয় নিম্নে উল্লেখ করা হলো:-
১) ইমাম নাওয়াওয়ী رحمه الله, জুনাইদ رحمه الله, যুন্‌নূন رحمه الله, ইমাম ইবনু ক্বায়্যিম رحمه الله সহ আরো অন্যান্য ‘উলামায়ে কিরাম কর্তৃক প্রদত্ত হায়া বা লজ্জাশীলতার সংজ্ঞা।
২) ক্বাল্‌ব তথা অন্তরের প্রাণ বা হায়াত এবং লজ্জাশীলতা বা হায়া এ দুটি বিষয় পারস্পরিক সম্পর্কযুক্ত ও সহায়ক।
৩) লজ্জাশীলতা সম্পর্কে ফুযায়ল ইবনু ‘ইয়ায رحمه الله এর বক্তব্য।
৪) মহান পালনকর্তা; আল্লাহ্‌র (سبحانه وتعالى) লজ্জাশীলতা এবং বান্দাহ্‌র লজ্জাশীলতার

নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং তা থেকে উত্তোরণের ক্বোরআন-ছুন্নাহ ভিত্তিক পথ ও পদ্ধতি (১৮তম পর্ব)

উছতায আবূ ছা‘আদাহ হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله এই অডিও বক্তব্যে নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং এসকল সমস্যা থেকে উত্তোরণের পথ ও পদ্ধতি বিষয়ে ক্বোরআন-ছুন্নাহ্‌র আলোকে অত্যন্ত মূল্যবান আলোচনা পেশ করেছেন। পারিবারিক এবং বৈবাহিক জীবনে নারীরা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হওয়া, সন্তানদের লালন-পালন করা, সুখী ও সমৃদ্ধ পরিবার গড়ে তোলা, ঘরের বাইরে কাজ-কর্ম করা ইত্যাদি অনেকগুলো বিষয় সম্পর্কে এখানে আলোচনা করা হয়েছে।
তাছাড়া বিশেষভাবে এখানে হিজাব বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে। উক্ত বক্তব্য থেকে অতি গুরুত্বপূর্ণ বিশেষ ক’টি বিষয় নিম্নে উল্লেখ করা হলো:-
১) পূর্ববর্তী ক্লাসের সংক্ষিপ্ত পূণঃ আলোচনা।
২) এটা জানা আব্যশক যে, একজন নারীর এমন কতক মাহ্‌রাম রয়েছেন, যাদের সামনে তাকে পর্দা পালন করতে হয় এবং এমন কতক মাহ্‌রাম রয়েছেন, যাদের সামনে সেভাবে পর্দা পালন তার জন্য আবশ্যক নয়।
৪) ১২ প্রকার মাহ্‌রাম রয়েছেন যাদের সামনে একজন নারীকে পর্দা পালন করতে হয় না। এর প্রমাণ হলো ছূরা নূরের ৩১নং আয়াত। উছতায বিষয়টি বিস্তারিত ব্যাখ্যা করেছেন। এছাড়া অন্য যেসব মাহ্‌রাম রয়েছেন তাদের সামনে একজন নারীর পর্দা পালন করা আবশ্যক।

নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং তা থেকে উত্তোরণের ক্বোরআন-ছুন্নাহ ভিত্তিক পথ ও পদ্ধতি (১৭তম পর্ব)

উছতায আবূ ছা‘আদাহ হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله এই অডিও বক্তব্যে নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং এসকল সমস্যা থেকে উত্তোরণের পথ ও পদ্ধতি বিষয়ে ক্বোরআন-ছুন্নাহ্‌র আলোকে অত্যন্ত মূল্যবান আলোচনা পেশ করেছেন। পারিবারিক এবং বৈবাহিক জীবনে নারীরা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হওয়া, সন্তানদের লালন-পালন করা, সুখী ও সমৃদ্ধ পরিবার গড়ে তোলা, ঘরের বাইরে কাজ-কর্ম করা ইত্যাদি অনেকগুলো বিষয় সম্পর্কে এখানে আলোচনা করা হয়েছে। তাছাড়া বিশেষভাবে এখানে মাহ্‌রাম ও হিজাব বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে। উক্ত বক্তব্য থেকে অতি গুরুত্বপূর্ণ বিশেষ ক’টি বিষয় নিম্নে উল্লেখ করা হলো:-
১) মাহ্‌রামের সংজ্ঞা। একজন নারী বা একজন পুরুষের জন্য কারা মাহ্‌রাম?
২) ছূরা আন্‌ নিছা এর ২৩নং আয়াতের ব্যাখ্যা:-
ক্বোরআনে কারীমে আল্লাহ سبحانه وتعالى ইরশাদ করেছেন:-

حُرِّمَتْ عَلَيْكُمْ أُمَّهَاتُكُمْ وَبَنَاتُكُمْ وَأَخَوَاتُكُمْ وَعَمَّاتُكُمْ وَخَالَاتُكُمْ وَبَنَاتُ الْأَخِ وَبَنَاتُ الْأُخْتِ وَأُمَّهَاتُكُمُ اللَّاتِي أَرْضَعْنَكُمْ وَأَخَوَاتُكُم مِّنَ الرَّضَاعَةِ وَأُمَّهَاتُ نِسَائِكُمْ وَرَبَائِبُكُمُ اللَّاتِي فِي حُجُورِكُم مِّن نِّسَائِكُمُ اللَّاتِي دَخَلْتُم بِهِنَّ فَإِن لَّمْ تَكُونُوا دَخَلْتُم بِهِنَّ فَلَا جُنَاحَ عَلَيْكُمْ وَحَلَائِلُ أَبْنَائِكُمُ الَّذِينَ مِنْ أَصْلَابِكُمْ وَأَن تَجْمَعُوا بَيْنَ الْأُخْتَيْنِ إِلَّا مَا قَدْ سَلَفَ ۗ إِنَّ اللَّهَ كَانَ غَفُورًا رَّحِيمًا. (سورة النساء-٢٣)

নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং তা থেকে উত্তোরণের ক্বোরআন-ছুন্নাহ ভিত্তিক পথ ও পদ্ধতি (১৬তম পর্ব)

উছতায আবূ ছা‘আদাহ হাম্মাদ বিল্লাহ حفظه الله এই অডিও বক্তব্যে নারীদের সম-সাময়িক বিভিন্ন সমস্যা এবং এসকল সমস্যা থেকে উত্তোরণের পথ ও পদ্ধতি বিষয়ে ক্বোরআন-ছুন্নাহ্‌র আলোকে অত্যন্ত মূল্যবান আলোচনা পেশ করেছেন। পারিবারিক এবং বৈবাহিক জীবনে নারীরা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হওয়া, সন্তানদের লালন-পালন করা, সুখী ও সমৃদ্ধ পরিবার গড়ে তোলা, ঘরের বাইরে কাজ-কর্ম করা ইত্যাদি অনেকগুলো বিষয় সম্পর্কে এখানে আলোচনা করা হয়েছে।
তাছাড়া বিশেষভাবে এখানে কথার দ্বারা পাপ করার এবং শিকায়াত করার বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে। উক্ত বক্তব্য থেকে অতি গুরুত্বপূর্ণ বিশেষ ক’টি বিষয় নিম্নে উল্লেখ করা হলো:-
১) উছতায শিকায়াত বা অভিযোগের সংজ্ঞা উদাহরণসহ তুলে ধরেছেন।
২) অভিযোগ করা কখন প্রশংসনীয় আর কখন নিন্দনীয়।
৩) আল্লাহ্‌র (سبحانه وتعالى) নিকট শিকায়াত করা জায়িয, তবে এর সঠিক পদ্ধতি কী? উছতায বেশক’টি উদাহরণসহ বিষয়টি ব্যাখ্যা করেছেন।
৪) একে অপরের বিষয়ে কিভাবে অভিযোগ করবে? অভিযোগের নামে নারী-পুরুষ একে অপরকে কিভাবে দোষারোপ করে থাকে?

Subscribe to our mailing list

* indicates required
Close